সর্বশেষ সংবাদ >>

ধারালো ছুরি দিয়ে শ্বাস না‌লি কেটে এক কিশোরীর আত্মহত্যার চেষ্টা।

T24X7 প্রতিনিধি30/07/2020TRIPURA

ধারালো ছুরি দিয়ে শ্বাস না‌লি কেটে কিশোরীর আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য বিরাজ করেছে করিমগঞ্জের মুল্লাগঞ্জ এলাকায়। বাড়ি থেকে প্রায় কুড়ি কিলোমিটার দূরত্বে মামার বাড়ি মুল্লাগঞ্জ। মামার বাড়ি থেকে  মুল্লাগঞ্জ বাজারের এক কাপড়ের দোকানের ট্রায়াল রুমের ভিতরে গিয়ে ধারালো ছুরি দিয়ে নিজের গলার শ্বাস না‌লি কেঁটে কিশোরী‌টি আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আহত কিশোরী বর্তমা‌নে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে শিলচর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পু‌লিশ ঘটনার তদ‌ন্তে নে‌মে প্রাথ‌মিক ভাবে জিঙ্গাসাবাদের জন্য কাপড় দোকানের  মালিক সহ আরেক ব্যবসায়িকে আটক করে থানায় নি‌য়ে গেছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ বাজেয়াপ্ত করেছে রক্তাক্ত একটি ধারালো ছু‌রি সহ এক‌টি ব‌্যগ। চাঞ্চল‌্যকর এই ঘটনা নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ নিলামবাজার থানার পুলিশ। ঘটনার বিবরণে জানা যায় বুধবার দুপুরে নিলামবাজার থানা এলাকার মুল্লাগঞ্জ বাজারে থাকা আব্দুল হকের কাপড়ের দোকানের ট্রায়াল রুমে এই ঘটনাটি সংঘটিত হয়। এইদিন দুপুরে প্রথমে ঐ কিশোরী অন্যান্য গ্রাহকের সঙ্গে ওই দোকানে গিয়ে নিজের জন্য জামা-কাপড় দেখা শুরু করে। একটি ড্রেস তাঁর পছন্দ হওয়া সেইটি পরিধান করে দেখার জন্য ট্রায়াল রুমে যায়। কিন্তু দীর্ঘ সময় সে ট্রায়াল রুম থেকে বেরিয়ে না আসায় দোকান মালিক ডাকতে যান। তখনই তিনি দেখতে পান ট্রায়াল রুমে কিশোরী রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। দোকান মালিকের চিৎকার শুনে এগিয়ে আসে স্থানীয়রা। পড়ে কিশোরীর পরিচয় জানা যায়। খবর দেওয়া হয় কিশোরীর বাড়ির লোকজনদের। এইদিকে রক্তাক্ত অবস্থায় কিশোরীকে উদ্ধার করে নিলামবাজার হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থা বেগতিক দেখে তা‌কে করিমগঞ্জ সরকারি হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখা‌নে গলার অপারেশনের ব্যবস্থা না থাকায় তা‌কে সেখান থেকে পাঠানো হয়েছে শিলচর মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালে।তবে কেন কিশোরী আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে নীলাম বাজার থানার পুলিশ।